1. likekuddus516bd@gmail.com : AK :
May 14, 2022, 3:55 am

দুধের পরে ডিম খেলে কী হয়? জেনে নিন…

Reporter Name
  • Update Time : Friday, October 26, 2018,

দুধের পরে ডিম খেলে কী হয়– সমাজে বিভিন্ন খাবার নিয়ে এক ধরনের বিভ্রান্তিমূলক প্রবাদ চালু রয়েছে। তেমনই একটি হলো দুধের পর ডিম খাওয়া। অনেকেই বলে থাকেন দুধের পর নাকি মাংস বা ডিম জাতীয় প্রোটিন খাওয়া ভালো নয়। এতে নাকি শরীর খারাপ আরও বাড়তে পারে।তবে গবেষণা বলছে, দুধের পরে বা সঙ্গে ডিম খাওয়া মোটেই খারাপ নয়। বরং ডিমের প্রচুর পরিমাণ প্রোটিন, অ্যামিনো অ্যাসিড, ফ্যাট এবং দুধের প্রোটিন ও ক্যালসিয়াম একসঙ্গে খাওয়া হলে শরীরের পক্ষে উপকার অনেক বেশি।তবে কাচা দুধ বা কাচা ডিম খেলে শরীর খারাপ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কারণ, এতে ফুড পয়েজিনের সম্ভাবনা থাকে।

আরও পড়ুন- ব্রয়লার মুরগি কি স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর?

আমাদের এখানে আসলে যেভাবে ব্রয়েলার মুরগিদের বড় করা হয়, তা একেবারেই সঠিক পদ্ধতি নয়। সর্বোপরি, যথাযথ বৈজ্ঞানিক পদ্ধতির তোয়াক্কা না করেই তাদের ব্রিড করানো হয়, যার সরাসরি প্রভাব পড়ে আমাদের শরীরের ওপর।মুরগি মোটাসোটা হবে তো তা থেকে বেশি মাংস পাওয়া যাবে, ফলে লাভ হবে বেশি। এই লোভে যেভাবে মুরগিদের মোটা করা হয় তা একেবারেই স্বাস্থ্যকর নয়।

আসুন জেনে নেওয়া যাক কী কী কারণে ক্ষতিকর হতে পারে ব্রয়লার মুরগি-

১. কাঁচা মাংসে প্রচুর পরিমাণে ব্যাকটেরিয়া থাকে। আর দোকানে যেভাবে একাধিক মুরগিকে এক সঙ্গে রাখা হয় তাতে দু-পাঁচটার শরীরে সেই ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়াগুলি প্রবেশ করাটাও অস্বাভাবিক নয়। আর এমনটা যে হয় না, সে কথা কেউ নিশ্চিত করে বলতে পারে কি?শুধু তাই নয়, যখন মুরগী কাটা হয় তখনও জীবিত মুরগির শরীর থেকে কাঁচা মাংসে ব্যাকটেরিয়া চলে যাওয়ার আশঙ্কা থেকে যায়। আর এই জীবাণু যদি আমাদের শরীরে প্রবেশ করে তাহলে আর রক্ষা নেই।২. পোলট্রিতে বড় করার সময় ব্রয়লার মুরগিদের অ্যান্টিবায়োটিক ইনজেকশন দেওয়া হয়। ফলে এমন ধরনের মুরগি বেশি খেলে আমাদের শরীরেও অ্যান্টিবায়োটিক রেজিজটেন্স তৈরি হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।৩. কয়েকজন বিশেষজ্ঞের মতো মাত্রাতিরিক্ত ব্রয়লার মুরগি খেলে রক্তে বাজে কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ক্যানসারে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কাও বৃদ্ধি পায়। তবে এই যুক্তির স্বপক্ষে এখন পর্যন্ত কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

৪. আগেই বলেছি ব্রয়লার মুরগিদের যেভাবে বড় করা হয় বা তাদের মেটা করার জন্য যে পদ্ধতি অনুসরণ করা হয় তা মোটেই বিজ্ঞানসম্মত নয়। এ ক্ষেত্রে এমন কিছু কেমিক্যাল মুরগির শরীরে ঢোকানো হয়, যা আমাদের শরীরে প্রবেশ করলে নানা রকমের জটিল রোগ হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।৫. ব্রয়লার চিকেন খেলে ফুড পয়জনিং হওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়। একাধিক গবেষণয়া দেখা গেছে প্রায় ৬৭ শতাংশ ব্রয়লার মুরগির শরীরে ই-কোলাই ব্যাকটেরিয়া থাকে, যা কোনোভাবেই কিন্তু আমাদের শরীরের পক্ষে ভালো নয়।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 atvnews24
Theme Customized BY LatestNews