Main Menu

সরকার গণতন্ত্রকে হত্যা করে তামাশার নির্বাচন করছে: রিজভী

 

ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনে উৎসবের লেশমাত্র নেই মন্তব্য করে বিএনপির সিনিয়র ‍যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, সরকার গণতন্ত্রকে হত্যা করে তামাশার নির্বাচন করছে।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতি কম হওয়ার দায় নির্বাচন কমিশনের নয়, প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) এমন বক্তব্যের সমালোচনা করেন রিজভী। বলেন, সিইসি নুরুল হুদা বলেছেন- রাজনৈতিক দলগুলো নির্বাচনে অংশ না নেয়া কমিশনের জন্য অস্বস্তিকর। সিইসি তার এই বক্তব্যে স্বীকার করে নিলেন যে, জনগণ ও দেশের রাজনৈতিক দলগুলোর কাছে তাদের কোনো গ্রহণযোগ্যতা নেই।

‘যে দেশে ভোটের আগের রাতেই ব্যালট পেপারে সিল মেরে ব্যালটবাক্স ভর্তি করা হয়, ভোট চুরি হয়, ভোট দিতে পারে না; সে দেশের মানুষ বর্তমান নির্বাচন কমিশনকে ধিক্কার ছাড়া অভিনন্দন পাওয়ার যোগ্য নয়। তিনি জনগণকে ভোট প্রদান থেকে প্রতারিত করেছেন’-যোগ করেন রিজভী।

নির্বাচন কমিশনের সমালোচনা করে বিএনপির এই নেতা আরও বলেন, সিইসি নুরুল হুদার আজ্ঞাবহ নির্বাচন কমিশনের জীবনদর্শনের জন্য গণতন্ত্র এখন রাহুগ্রস্ত। ৩০ ডিসেম্বরে ভোট চুরির মহৌৎসব করে একটি অবৈধ শাসকগোষ্ঠীকে রাষ্ট্রক্ষমতায় বসিয়ে দেশকে গভীর সংকটে নিপতিত করার মূল হোতাই হচ্ছেন সিইসি নুরুল হুদা। কাজেই জনগণ এবং রাজনৈতিক দলগুলো এখন নির্বাচন কমিশন থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতারা অংশ নেন।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*