Main Menu

রতন কে এমপি নয় মন্ত্রী হিসাবে দেখতে চায় এলাকাবাসী

আহম্মদ কবির,তাহিরপুর প্রতিনিধিঃ  
সুনামগঞ্জ-১(তাহিরপুর,ধর্মপাশা,জামালগঞ্জ,মধ্যনগর)আসনের নবনির্বাচিত এমপি, ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হাওর বন্ধু উন্নয়নের রুপকার খ্যাত ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, সুনামগঞ্জ-১তাহিরপুর,জামালগঞ্জ,ধর্মপাশা,মধ্যনগর এলাকার  বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ বিভিন্ন চায়ের দোকানে, আলোচনা সভায় এমনকি সামাজিক মাধ্যম পেইজবুকে এম,পি রতন কে মন্ত্রীর আসনে দেখার দাবি করে আসছেন ।
একজন পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ ও বঙ্গবন্ধুর  নীতি আদর্শের প্রতীক ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন তিনি একাধারে দু দুবার   জাতীয় সংসদের এমপি থাকাকালীন সময়ে  হাওর বেষ্টিত সুনামগঞ্জ-১ এলাকার  ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন।
যার ফলেই উনাকে আবার পুনঃরায়  গত রবিবার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে  ২লক্ষ  ৬৪ হাজার ২৪ ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছে সুনামগঞ্জ-১তাহিরপুর,জামালগঞ্জ,ধর্মপাশা,মধ্যনগর,এলাকাবাসী।  এ আসনটির দুইটি উপজেলা ও একটি থানার সমন্বয়ে গঠিত হলেও একটি উপজেলা এক সময় বিএনপির ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত ছিল।কিন্তু  নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির  মনোনীত প্রার্থী  ডাঃ রফিক চৌধুরী কে  বিশাল ব্যবধানে পরাজিত করে বিএনপির এ ঘাঁটিকে তছনছ করে দিয়ে এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, ।গত( ৩০শে,ডিসেম্ব) একাদশ  জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রেকর্ড পরিমান ভোটে  বিএনপির মনোনীত প্রার্থী, ও বিএনপির জেলা কমিটির সাবেক সভাপতি এবং এ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য নজির হোসেন কে পরাজিত করে  নির্বাচিত হন তিনি। তিনি এ এলাকায় একাধারে দুই বারের এম,পি হিসেবে ব্যাপকহারে উন্নয়ন করেছেন,বর্তমানে ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন কে মন্ত্রী হিসেবে দেখতে চায় সুনামগঞ্জ -১ এলাকাবাসী ।
তারা বলেন এ আসন থেকে বিগত দিনেও  জাতীয় পার্টি, বিএনপি ও আওয়ামী লীগের কোন সংসদ সদস্যগন মন্ত্রী হতে পারেননি।
ফলে কাঙ্খিত কোন উন্নয়ন হয়নি।  যতটুকু হয়েছে তা আওয়ামী লীগের আমলেই হয়েছে। এখনো গ্রামাঞ্চলে  অনেক কাঁচা রাস্তা রয়ে গেছে । বাকী রয়েছে ব্রীজ কালভার্টসহ বিভিন্ন ধরনের উন্নয়নমূলক কাজ। বর্তমানে  রতন কে  নিয়েই স্বপ্ন দেখছে এলাকাবাসী ।
মধ্যনগর থানা আওয়ামীলীগের অন্যতম নেতা শফিকুল ইসুলাম শফিক বলেন উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে রতন কে এমপি নয় মন্ত্রী হিসাবে দেখতে চাই,
বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন মধ্যনগর থানা শাখার সভাপতি শেখ মোহাম্মদ আলী হোসেন উনার সামাজিক মাধ্যম পেইজবুকে প্রকাশ করেন,সুনামগঞ্জ-১ আসনের স্বাধীনতার পর হতে অনেক এমপি হয়েছেন কিন্তু মন্ত্রী হিসাবে কাউকেই দেখিনি তাই      উন্নয়নের রুপকার খ্যাত হাওর বন্ধু  ভাটি বাংলার সিংহ পুরুষ ৩-বারের সংসদ সদস্য, জননেতা ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন কে এমপি নয়   মন্ত্রীর আসনে দেখতে চাই।
শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আল আমিন বলেন, স্বাধীনতার   পর এ আসন থেকে কয়েকজন এমপি হয়েছেন কিন্তু কাউকে মন্ত্রীত্ব দেওয়া হয়নি তাই আমাদের প্রাণের দাবি রতন নীতি আদর্শের প্রতীক বিগত ১০বছর ধরে যিনি আওয়ামী লীগের এমপি হিসাবে নির্বাচিত হয়ে  এলাকার ব্যাপকহারে উন্নয়ন  করে আসছেন তাকে মন্ত্রীত্ব দেওয়া হউক।
এলাকার একাধিক ভোটারদের সাথে আলাপচারিতাতেও জানা যায়  ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন একজন বঙ্গবন্ধুর আদর্শের পরিক্ষিত সৈনিক সে হিসেবে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন কে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর   মন্ত্রীত্ব দেবেন সে দাবী আমাদের সকলের।





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*